শীতে সাজেক ভ্যালী

0
18

আপনি যদি একদিনে প্রকৃতির তিন টি রূপ দেখতে চান তাহলে আপনার জন্যই সবচেয়ে উত্তম জায়গা হবে সাজেক।
কখনো খুবই গরম , একটু পরেই হটাৎ বৃষ্টি এবং তার কিছু পরেই হয়তো চারদিকে ঢেকে যায় মেঘের চাদরে ; মনে হয় যেন একটা মেঘের উপত্যকা । সাজেকের রুইলুই পাড়া থেকে ট্রেকিং করে কংলাক পাহাড়-এ যাওয়া যায় । কংলাক হচ্ছে সাজেকের সর্বোচ্চ চূড়া । কংলাকে যাওয়ার পথে মিজোরাম সীমান্তের বড় বড় পাহাড় , আদিবাসীদের জীবনযাপন , চারদিকে মেঘের আনাগোনা পর্যটকদের দৃষ্টি কেড়ে নেয় । বছরের নির্দিষ্ট সময়ে অনুষ্ঠিত আদিবাসীদের উৎসবের সময় তাদের সংস্কৃতির নানা উপকরণ পর্যটকরা উপভোগ করতে পারেন ।

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৮০০ ফুট উচ্চতায় মেঘের রাজ্যে আপনাকে স্বাগতম। সাজেক রাংগামাটি জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলার একটি ইউনিয়ন। এখানকার আবহাওয়া খুব দ্রুত রুপ পরিবর্তন করে। হয়তো বা একদিনেই আপনি এখানে দেখবেন এই বুঝি গরমে দম হাসফাস করছে আরেকটু পরেই আবার দেখবেন বৃষ্টি তে ভিজে চুপচুপ হয়ে আপনি একাকার। আর তারপরেই অবাক বিস্ময়ে দেখলেন আপনি মেঘের ভেতর ভাসছেন। হ্যা , এটাই সাজেকের আলাদা বৈশিষ্ট্য। আর আশেপাশে পাবেন বেশ কিছু পাহাড়। যেগুলো আপনাকে হাতছানি দিয়ে ডাকবে প্রকৃতির মায়াজালে। কংলাক পাহাড়ের চূড়া থেকে শীতের সকালে কুয়াশার ফাক গলে সূর্যোদয় দেখতে কেমন লাগবে নিজেই একবার ভাবুন ! আর সাজেক পরিবার বন্ধুবান্ধব সবাইকেই নিয়েই ঘুরার মতো একটা জায়গা। বাকি আর কিছু না বললাম, সাজেকের বাকি সৌন্দর্য আপনি উপভোগ করুন সাজেক ভ্যালি গিয়েই। আর এই শীতেই তার মোক্ষম সুযোগ।

LEAVE A REPLY