তাপসের বিরুদ্ধে মানহানিকর বক্তব্যের অভিযোগে সাঈদ খোকনের নামে মামলা

0
3

ঢাকা দক্ষিন সিটি কর্পোরেশনের(ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নুর তাপসের বিরুদ্ধে মান হানিকর মামলার অভিযোগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করা হয়েছে। আজ সোমবার (১১ জানুয়ারি) ঢাকার মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরীর আদালতে মামলা দুটি করা হয়।

একটি মামলার বাদীর নাম কাজী আনিসুর রহমান অপরটির বাদী অ্যাডভোকেট মো. সারওয়ার আলম। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণের পর মামলা দুটি আদেশের জন্য রেখেছেন। আদালতের বেঞ্চ সহকারী রিপন মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মামলায় দণ্ডবিধির ৫০০ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। এখন মামলার বিষয়ে শুনানি হচ্ছে।

এর আগে সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করা হবে বলে জানিয়েছিলেন শেখ ফজলে নূর তাপস। রাজধানীর মানিকনগরে খাল পরিষ্কার কার্যক্রম পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের সামনে তাপস বলেন, দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বক্তব্য মানহানিকর। তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দুর্নীতির বিরুদ্ধে সিটি কর্পোরেশনের চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে জানিয়ে মেয়র তাপস বলেন, বিভিন্নভাবে যারা টাকা লেনদেন করেছেন তারাই দুর্নীতির অভিযোগ করছেন। এই অভিযোগ তার নিজের নয় বলেও জানান তাপস। সাবেক মেয়রের এমন বিষোদগার ব্যক্তিগত আক্রমণ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

গত শনিবার রাজধানীতে এক মানববন্ধনে শেখ ফজলে নূর তাপস মেয়র পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন বলে মন্তব্য করেন সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন। ওই সময় তিনি অভিযোগ করেন, তাপস দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের শত শত কোটি টাকা তার নিজ মালিকানাধীন মধুমতি ব্যাংকে স্থানান্তরিত করেছেন। এছাড়া শত শত কোটি টাকা বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা লাভ হিসেবে গ্রহণ করছেন।

সাঈদ খোকন আরো বলেন, তাপস মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে গলাবাজি করে চলেছেন। অন্যদিকে অর্থের অভাবে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের গরিব কর্মচারীরা মাসের পর মাস বেতন পাচ্ছেন না। সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প অর্থের অভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। পরিদন রবিবার সাঈদ খোকনের এ বক্তব্যকে তাঁর ব্যক্তিগত অভিমত বলে মন্তব্য করেন মেয়র তাপস এবং এর জবাব দেয়া সমীচীন নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

LEAVE A REPLY